• ঢাকা, বাংলাদেশ রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ০৭:৪৬ পূর্বাহ্ন
নোটিশ
রাজশাহীতে আমরাই প্রথম পূর্ণঙ্গ ই-পেপারে। ভিজিট করুন epaper.rajshahisangbad.com

আজিজ-বেনজীরের কাহিনি ঢাকতে জিয়ার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চলছে: রিজভী

রাজশাহী সংবাদ ডেস্ক
সর্বশেষ: বৃহস্পতিবার, ৩০ মে, ২০২৪

সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল (অব.) আজিজ আহমেদ ও পুলিশের সাবেক আইজিপি বেনজীর আহমেদের কাহিনি ঢাকার জন্য প্রধানমন্ত্রী জিয়া পরিবারের বিরুদ্ধে অশালীন ভাষায় কথা বলছেন বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেন, আমরা দেখতে পাচ্ছি নানা ধরনের বাস্তব সত্য কেচ্ছা কাহিনি যেগুলো মানুষ জানলেও ভয়ে কিছু বলতে পারতো না।

এখন সত্য কথা বলার মতো প্লাটফর্ম নেই। কারণ দেশে বাকশাল চলছে, দেশে একদলীয় শাসন চলছে, একনায়কোচিত শাসন চলছে। কেউ সত্য বলতে সাহস পায় না। তারপরেও একের পর এক সত্য বের হয়ে আসছে। বেনজিরের কাহিনি, আজিজের কাহিনি, ক্যাসিনোর কাহিনি লুকাতে পারছে না সরকার।
বৃহস্পতিবার (৩০ মে) দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব) উদ্যোগে বিএনপি প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ৪৩তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ কর্মসূচিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, শেখ হাসিনা একটা জিনিস খুব পারদর্শী যখন চরম সংকটে দেশ পড়ে তখন জনগণের দৃষ্টিটাকে অন্যদিকে ফেরানোর জন্য নানা কাজ করে থাকেন। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান বগুড়ায় একটি ম্যুরাল উদ্বোধন করেছিলেন আওয়ামী লীগের পান্ডারা সেটি ভেঙে ফেলেছে। এই সরকার চায় এগুলো নিয়েই সবাই ব্যস্ত থাকুক। গোটা দেশ লুটপাটের স্বর্গরাজ্য বানানো হয়েছে – এটা নিয়ে যাতে কেউ কথা বলতে না পারে।

বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, আওয়ামী লীগ হলো ছিঁচকে মাস্তান জাতীয় রাজনৈতিক দল। বখাটেরা আওয়ামী লীগ করে আর ক্যাসিনোর মালিকরা আওয়ামী লীগ করে।

পানির শুল্ক দশ শতাংশ বৃদ্ধির তীব্র নিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন, পানির অপর নাম জীবন। সেই পানিও আপনি খেতে পারবেন না। পানির শুল্ক ১০ শতাংশ শতাংশ বৃদ্ধি করা হয়েছে। ওয়াসা তো দুর্নীতির হিমালয়। এই ওয়াসার এমডিকে কেউ সেখান থেকে সরাতে পারে না উনি নাকি বিদেশ থেকেও অফিস পরিচালনা করেন এই হচ্ছে দেশের অবস্থা। আমরা এক দুর্বিষহ জীবন যাপন করছি। জনগণ এক রুদ্ধশ্বাস দিন যাপন করছে।

সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ এবং সাবেক আইজিপি বেনজির আহমেদের দায়িত্ব পালনের সময় কর্মকাণ্ডের সমালোচনা করে তিনি আরও বলেন, ২০১৫ সালে আন্দোলনের সময় এবং ২০১৮ সালের নির্বাচনের আগে জনগণকে প্রকাশ্যে হুমকি দিয়েছিলেন এই দুইজন।

এ সময় বিএনপির স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপুসহ ড্যাবর নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


আরো খবর