• ঢাকা, বাংলাদেশ বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১১:১৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম
মোহনপুরে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে সেই হাবিবার বাজিমাত রাজশাহীতে অটোরিকশাকে ট্রেনের ধাক্কা, নিহত ২ নগরীতে দুই অপহরণকারী গ্রেপ্তার, অপহৃত উদ্ধার রাসিক ইমপ্লয়মেন্ট স্কিল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউটে প্রশিক্ষণ নিয়ে পেইড ইন্টার্নশিপের সুযোগ পেলেন ৯০ জন নিয়ামতপুরে দুর্নীতিবিরোধী বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত গোমস্তাপুরে জাতীয় শিক্ষা  সপ্তাহের পুরস্কার বিতরণী রহনপুরে  কৃতি শিক্ষার্থী  সম্বর্ধনা  বাঘায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সংঘাত ও সহিংসতা পরিহারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন উপজেলা নির্বাচন: পবা ও মোহনপুরে হামলা-সংঘর্ষ রাজশাহীতে চেয়ারম্যান প্রার্থীর ছেলের উপর হামলা
নোটিশ
রাজশাহীতে আমরাই প্রথম পূর্ণঙ্গ ই-পেপারে। ভিজিট করুন epaper.rajshahisangbad.com

আবাহনীর বড় জয়

স্পোর্টস ডেস্ক
সর্বশেষ: বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২৪

অল্প রানেই অলআউট হয়ে গেল শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। দলটির কোনো ব্যাটারই হাল ধরতে পারলেন না দলের।

একশর নিচের ওই লক্ষ্য তাড়া করতে পাওয়ার প্লেটাই যথেষ্ট হলো আবাহনীর জন্য। উইকেটও হারাতে হয়নি তাদের।
মিরপুরের শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ডিপিএলের ম্যাচে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবকে ১০ উইকেটে হারিয়েছে আবাহনী। শুরুতে ব্যাট করে স্রেফ ৮৮ রানে অলআউট হয়ে যায় শেখ জামাল। ওই রান ১০ ওভার ২ বল খেলেই তাড়া করে আবাহনী। ১১ ম্যাচের সবগুলোতে জিতে পয়েন্ট টেবিলে সবার ওপরে তারা। ৮ জয় নিয়ে তাদের পরের অবস্থানে শেখ জামাল।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা এতটাও মন্দ হয়নি শেখ জামালের। ৫০ রান তুলতে তারা হারিয়েছিল তিন উইকেট। পরের ৩৮ রানে হারায় সাত উইকেট। আবাহনীর তিন পেসার শরিফুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ ও তানজিম হাসান সাকিব মিলে নেন সাত উইকেট।

শেখ জামালের দুই ওপেনারই দুই অঙ্ক ছুঁয়েছিলেন ব্যক্তিগত সংগ্রহে। ১০ বলে ১৬ রান করা সাইফ হাসান ক্যাচ দেন শরিফুল ইসলামের বলে। পরে ৩২ বলে ২৩ রান করে তানজিম হাসানের বলে ক্যাচ দেন সৈকত আলী।

এর বাইরে আর দুজন ব্যাটার দুই অঙ্কে যেতে পারেন। ২১ বলে ১৪ রান করে তাইবুর রহমান শিকার হন মোসাদ্দেক হোসেনের বলে। ২৭ বলে ১৭ রান আসে ইয়াসির আলী রাব্বির ব্যাটে; শরিফুলের বলে এনামুল হক বিজয়ের দুর্দান্ত ক্যাচ হয়ে সাজঘরে ফেরেন তিনি।

আবাহনীর হয়ে তোপ দাগেন শরিফুল ইসলাম। ৭ ওভার বল করে ১ মেডেনসহ ৩৫ রান দিয়ে চার উইকেট নেন তিনি। ৫ ওভারে ১৬ রান দিয়ে দুই উইকেট পান তাসকিন আহমেদ। ৪ ওভারে ২২ রান দিয়ে একটি উইকেট নেন তানজিম। এছাড়া স্পিনার তানভীর ইসলাম দুটি ও মোসাদ্দেক হোসেন পান এক উইকেট।

রান তাড়ায় নামা আবাহনীর জন্য জয় ছিল কেবল সময়ের ব্যাপার। কত দ্রুত তারা কাজটি সারতে পারেন সেটিরই ছিল অপেক্ষা। ১০ ওভার ২ বলেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় আবাহনী। উইকেটও হারাতে হয়নি তাদের। ৩ চার ও সমান ছক্কায় ২২ বলে ৩৭ রান করে এনামুল হক বিজয় ও ৪০ বলে ৫৩ রান করে নাঈম শেখ অপরাজিত থাকেন।


আরো খবর