• ঢাকা, বাংলাদেশ শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০৭:৩৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
চাঁপাইনবাবগঞ্জে পুকুরে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু তানোরে গরু মোটাতাজা করণে নিষিদ্ধ ওষুধের রমরমা বাণিজ্য  রাইসির হেলিকপ্টার দুর্ঘটনার নতুন তথ্য দিল তদন্ত কমিটি শহিদ কামারুজ্জামানের সমাধীতে বঙ্গবন্ধু কলেজ রাজশাহীর গভর্নিং বডির সদস্যদের শ্রদ্ধা বাগমারায় প্রতিপক্ষের হামলায় আহত যুবকের মৃত্যু নগরীতে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে প্রতারণার দায়ে যুবক গ্রেপ্তার সাবেক আইজিপি হলেও অপরাধ করলে শাস্তি পেতে হবে: কাদের ভিডিও ফুটেজে দেখা গেল স্যুটকেসসহ এমপি আনারের ‘দুই কিলার’ রাজশাহীতে ইনোভেশন ফর ক্লাইমেট-স্মার্ট আরবান ডেভেলপমেন্ট শীর্ষক প্রকল্পের কর্মশালার উদ্বোধন নগরীতে পুলিশের পৃথক দুটি মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেপ্তার

ডামি নির্বাচনের সরকার জনবিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে: রিজভী

রিপোর্টার নাম:
সর্বশেষ: শুক্রবার, ২৯ মার্চ, ২০২৪

রাজশাহী সংবাদ ডেস্ক :

তিনি আরও বলেন, ক্ষমতাসীন দলের এমপিদের সন্ত্রাসী বাহিনীরা দেশে ভয়াবহ নৈরাজ্যকর ও ভয়াবহ পরিস্থিতি  তৈরি করেছে।ডামি নির্বাচনের পর সরকার সন্ত্রাসীদের ওপর ভর করে দেশ চালাচ্ছে। কারণ তাদের সঙ্গে কোনো জনগণ নেই, তাদের কোনো জনগণের ভোটের প্রয়োজন হয় না। তিনি বলেন, সন্ত্রাস নির্ভর সরকারের পরিণতি ভালো হবে না।
শুক্রবার (২৯ মার্চ) বিএসএমএমইউ সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নাটোর জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ফরহাদ আলী দেওয়ান শাহীনকে দেখতে গিয়ে এসব কথা বলেন। এ সময় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু এবং স্বাস্থ্য সম্পাদক ডা. রফিকুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আরও বলেন, নাটোরের এমপি শিমুলের সন্ত্রাসী বাহিনীরা  ফরহাদ আলী দেওয়ান শাহীনকে হত্যার উদ্দেশে হামলা করেছে, তার ওপর গুলি চালিয়েছে। সে জেলা ছাত্রদল ও জেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি ছিল। সরকার বিরোধী আন্দোলন ও সংগ্রামে সে অত্যন্ত সক্রিয় ভূমিকা রেখেছে। আর এ কারণেই ক্ষমতাসীন দলের নেতারা তার ওপর ক্ষুদ্ধ। কিন্তু হত্যা করে, নিপীড়ন করে সরকারের শেষ রক্ষা হবে না।

গত ১৩ মার্চ নাটোর জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ফরহাদ আলী দেওয়ান ওরফে শাহীনকে (৪২) মাইক্রোবাসের ধাক্কায় ফেলে দেওয়ার পর পিটিয়ে ও গুলি করে হত্যাচেষ্টা করে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। তারা এমপি শিমুলের অনুসারী। ফরহাদ আলী দেওয়ান একটি রাজনৈতিক মামলায় হাজিরা দেওয়ার জন্য ওইদিন দুপুর ১২টার দিকে দায়রা জজ আদালতে আসেন। হাজিরা দেওয়ার পর তিনি মোটরসাইকেলে আদালত থেকে সিংড়ার দিকে রওনা হন। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তিনি নাটোর-বগুড়া মহাসড়কের ফুলবাগান এলাকায় সড়ক ও জনপথ (সওজ) অধিদপ্তরের কার্যালয়ের সামনে পৌঁছালে পেছন থেকে একটি মাইক্রোবাস তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়।

তিনি সড়কের পাশে পড়ে গেলে ওই মাইক্রোবাস থেকে সন্ত্রাসীরা নেমে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে তার বাঁ হাত ভেঙে দেয়। পরে  তার পায়ে তিনটি গুলি করে। খবর পেয়ে বিএনপির দুই কর্মী তাকে উদ্ধার করে প্রথমে শহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে তাৎক্ষণিক রাজশাহীতে নেওয়া হয়। সেখান থেকে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার বিএসএমএমইউ সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল স্থানান্তর করে  চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।


আরো খবর