• ঢাকা, বাংলাদেশ বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ০৩:৫৩ পূর্বাহ্ন
নোটিশ
রাজশাহীতে আমরাই প্রথম পূর্ণঙ্গ ই-পেপারে। ভিজিট করুন epaper.rajshahisangbad.com

নিয়ামতপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে শেষ মুহুর্তের প্রচারণায় ব্যস্ত প্রার্থীরা

নিয়ামতপুর প্রতিনিধি
সর্বশেষ: শুক্রবার, ১৭ মে, ২০২৪

‘২১ তারিখ সন্ধ্যাবেলা, ফরিদ ভাই পরবে জয়ের মালা। এই এলাকার প্রার্থী যারা,বিপ্লব ভাই সবার সেরা। এলাকাবাসীকে বলে যাই বাল্ব মার্কায় ভোট চাই।’ এই রকম প্রচারণায় সরগরম নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলার সর্বত্র। দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত মাইকে চলছে এইসব প্রচারণা।

নিয়ামতপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন দ্বিতীয় ধাপে ২১ মে। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এখন প্রার্থীরা ব্যস্ত সময় পার করছেন। দিন যতই ঘনিয়ে আসছে প্রার্থীদের প্রচারণা ততই বেড়ে যাচ্ছে। লিফলেট হাতে সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত চলছে প্রচার-প্রচারণা। প্রার্থীরা বিভিন্ন হাটে- বাজারে, গ্রামে, গ্রামে এমনকি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও ভোট প্রার্থনা করছেন।পোষ্টারে ছেয়ে গেছে গ্রামে, পাড়া-মহল্লায়, হাটে- বাজারে উপজেলার প্রতিটি এলাকা। ভোটারেরা হাটে- বাজারে, গ্রামে, চায়ের স্টলে প্রার্থীদের আচার ব্যবহার, কো

চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ফরিদ আহম্মেদ (মোটরসাইকেল প্রতীক) বলেন,  আমি গত পাঁচ বছর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান থাকাকালীন জনগণের সেবা করেছি। আমার কাছে সেবা নিতে এসে কেউ নিরাশ হয়ে ফিরে যাইনি। তাই জনগণ ২১ তারিখের ভোটে আমাকেও নিরাশ করবেন না। মোটরসাইকেল মার্কায় ভোট দিয়ে আমাকে আবারও বিপুল ভোটে জয়যুক্ত করবেন।

সাধারণ ভোটারদের সাথে কথা বলে জানা যায়,তারা প্রার্থী দেখে ভোট দিবেন। যিনি এলাকার মানুষের জন্য চিন্তা করেন এমন প্রার্থীকেই ভোট দিয়ে তারা চেয়ারম্যান নির্বাচিত করবে।

ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী (বাল্ব প্রতীক) তুশিত কুমার সরকার বলেন, আমি দুই মেয়াদে ইউপি সদস্য ছিলাম। সদস্য থাকা অবস্থায় আমি জনগণের পাশে থেকে আমার সাধ্যমত সহযোগিতা করেছি। আমি ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে আবারও জনগণের পাশে থেকে সেবা করতে চাই।

তিনি আরও বলেন, আমি উপজেলার সব এলাকায় যেতে পারিনি। তবে আমার পোস্টার-প্রচারণা সব জায়গায় পৌঁছেছে।  আমার বিশ্বাস এই পোস্টারে আমার বাল্ব মার্কা দেখে জনগণ আমাকে তাদের মূল্যবান ভোটটা দিয়ে আমাকে নির্বাচিত করবেন।

নিয়ামতপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদের প্রার্থীরা হলেন  উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ (কাপ পিরিচ), উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র  সহ-সভাপতি ঈশ্বর চন্দ্র বর্মন (ঘোড়া), উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান ফরিদ আহম্মেদ (মোটরসাইকেল), উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহিদ হাসান বিপ্লব (হেলিকপ্টার), নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক আবেদ হোসেন মিলন (আনারস), সোহরাব হোসেন (জোড়া ফুল) প্রতীক নিয়ে ৬ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

ভাইস-চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীরা হলেন উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক রায়হান কবির রাজু (চশমা), ভাবিচা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তুশিত কুমার সরকার (বাল্ব), আফজাল হোসেন বুলু (টিউবওয়েল), উপজেলা সাবেক ছাত্রলীগের আহ্বায়ক তাওফিক হোসেন চৌধুরী (মাইক), রেজাউল করিম (তালা)  প্রতীক নিয়ে ৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানে পদে প্রার্থীরা হলেন উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান নাদিরা বেগম (কলস), পাড়ইল ইউনিয়ন আওয়ামী মহিলা লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক  ফাতেমা জোহরা খাতুন (ফুটবল), স্বপ্না রানী (পদ্ম ফুল), নাজমিন আরা (হাঁস) প্রতীক নিয়ে ৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।


আরো খবর