• ঢাকা, বাংলাদেশ রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ০৭:২৩ পূর্বাহ্ন
নোটিশ
রাজশাহীতে আমরাই প্রথম পূর্ণঙ্গ ই-পেপারে। ভিজিট করুন epaper.rajshahisangbad.com

পত্নীতলায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র আ’লীগে বিভক্তি

পত্নীতলা প্রতিনিধি
সর্বশেষ: সোমবার, ৮ এপ্রিল, ২০২৪

নওগাঁর পত্নীতলায় আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসাবে প্রচার প্রচারনা গণসংযোগ করে নিজেদের প্রার্থীতা জানান দিচ্ছেন চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে সম্ভাব্য প্রার্থীরা।

চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালেক চৌধুরী এবং আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল গাফ্ফার।  উপজেলা আওয়ামীলীগের শীর্ষ পদের দুই নেতা সম্ভাব্যপ্রার্থী হওয়ায় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা একাংশ  সভাপতিকে  এবং অন্যাংশ সাধারণ সম্পাদককে সমর্থন করছে আবার কেউ কেউ দিধাদ্বন্দে আছেন কার পক্ষে যাবেন আর কে মন খারাপ করবেন।  এদিকে এক গ্রুপ অন্য গ্রুপের প্রার্থীর নানা দোষত্রুটি প্রচার করছে। কাঁদা ছুঁড়া ছুঁড়ি অবস্থা। তৃনমুলে অনেকই পরেছে বিপাকে।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় ঘোষনা মতে এবার থাকছেনা দলীয় প্রতীক। স্থানীয় সংসদ সদস্যও এ নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করতে পারবেনা।  তাই এবার ভোটযুদ্ধ নিজেদের মধ্যে বিএনপির কোন সম্ভাব্য প্রার্থীকে এখনো মাঠে দেখা যায়নি। তবে ভাইস চেয়ারম্যান পদে জামায়াত ইসলামের একজন সম্ভাব্য প্রার্থী রযেছেন। বিএনপি দলীয় সাবেক দুই বারের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মরিয়ম বেগম শেফা জানান দল সিদ্ধান্ত দিলে তিনি নির্বাচন করবেন।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে এখন পর্যন্ত দুজনকে মাঠে দেখা গেছে বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক  খাদিজাতুল কোবরা মুক্তা এবং  মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক সাবিনা আক্তার,

ভাইস চেয়ারম্যান পদে  বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক  আব্দুল আহাদ রাহাদ,  উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক দিলিপ চৌহান, জেলা জামায়েত ইসলামের সহ সেক্রেটারী মকিম সহ আরোও  প্রায় হাফ ডজন সম্ভাব্যপার্থীর নাম শোনা যাচ্ছে।  তবে মনোনয়ন ফরম উত্তলন এবং জমাদানের পরই জানা যাবে আসলে কতজন প্রার্থী এই নির্বাচনে  প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এদিকে নেতাকর্মী সমর্থকরা অনেকেই  পরিবর্তন চায়,  নতুন মুখ আসাই ভালো তারা বলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি  বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালেক চৌধুরী  একজন উচ্চ শিক্ষত ব্যক্তি এবং বীর মুক্তিযোদ্ধা  নির্বাচিত হলে দেশ ও মানুষের জন্য তিনি ভালো কাজ করবেন।

আবার অপর পক্ষের নেতাকর্মী সমর্থকরা  বলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল গাফ্ফার একজন স্বচ্ছ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ব্যবসাযিক মানুষ,  চেয়ারম্যান থাকা অবস্থায় মানুষের জন্য ভালো কাজ করেছে তাই ওনি আবার হলে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে ।

সাধারণ ভোটাররা বলেন  যিনি আমাদের কথা শোনাবে, বুঝবে  ,সুখে দুঃখে পাশে থাকবে তাকেই আমরা ভোট দিবো।

নওগাঁ জেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং অফিসারের কার্যালযের এক গণবিজ্ঞপ্তিতে জানা ষায়  আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে  মনোনয়ন পত্র দাখিলের শেষ তারিখ ১৫ এপ্রিল, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২২ এপ্রিল, প্রতীক বরাদ্দ হবে ২৩শে এপ্রিল,  আর ভোট গ্রহন  হবে ৮ ই মে সকাল ৮ থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ব্যালট পেপারের  মাধ্যমে।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার জাহিদুর রহমান জাহিদ বলেন ১ টি পৌরসভা ও ১১টি ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ২০ লক্ষ ১ হাজার ৯২০ জন এর  মধ্যে পুরুষ ভোটার ১০ লক্ষ ৮৯০ জন  মহিলা ভোটার ১০ লক্ষ ১ হাজার ৩০ জন। ৭৪ টি ভোট কেন্দ্রে ৫৪২ টি কক্ষে ভোট গ্রহন হবে।


আরো খবর