• ঢাকা, বাংলাদেশ শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০৮:৩৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
চাঁপাইনবাবগঞ্জে পুকুরে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু তানোরে গরু মোটাতাজা করণে নিষিদ্ধ ওষুধের রমরমা বাণিজ্য  রাইসির হেলিকপ্টার দুর্ঘটনার নতুন তথ্য দিল তদন্ত কমিটি শহিদ কামারুজ্জামানের সমাধীতে বঙ্গবন্ধু কলেজ রাজশাহীর গভর্নিং বডির সদস্যদের শ্রদ্ধা বাগমারায় প্রতিপক্ষের হামলায় আহত যুবকের মৃত্যু নগরীতে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে প্রতারণার দায়ে যুবক গ্রেপ্তার সাবেক আইজিপি হলেও অপরাধ করলে শাস্তি পেতে হবে: কাদের ভিডিও ফুটেজে দেখা গেল স্যুটকেসসহ এমপি আনারের ‘দুই কিলার’ রাজশাহীতে ইনোভেশন ফর ক্লাইমেট-স্মার্ট আরবান ডেভেলপমেন্ট শীর্ষক প্রকল্পের কর্মশালার উদ্বোধন নগরীতে পুলিশের পৃথক দুটি মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেপ্তার

পুঠিয়ায় নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে রাস্তা তৈরি অভিযোগ 

রিপোর্টার নাম:
সর্বশেষ: সোমবার, ১৮ মার্চ, ২০২৪

পুঠিয়া প্রতিনিধি :
রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার শিলমাড়িয়া ইউনিয়নের টুলটুলি পাড়া হতে ছাতার পাড়া ব্রিজ পর্যন্ত দেড় কিলোমিটার রাস্তা ৬০ লাখ টাকার বরাদ্দের   তৈরি করা হয়েছে খুবই নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে। সেখানে এখন হাত দিয়েই তোলা যাচ্ছে রাস্তার পিচ ঢালাই।
পুঠিয়া উপজেলার টুলটুলি পাড়া থেকে ছাতারপাড়া পর্যন্ত সংস্কার কাজের পিচ ঢালাই কাজ শেষ করা হয়েছে। সেখানে ব্যাপক নিম্ন মানের কাজ হয়েছে বলে অভিযোগ উঠে। সরজমিনে গিয়ে দেখা মিলে এর সত্যতা।
জানা যায়, রাজশাহীর ‘নতুন’ নামের এক ঠিকাদার ওই কাজ করে।
কাজটি করার পর কাজের গুনগত মান নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। এ নিয়ে এলাকাবাসীদের সাথে কথা হলে ক্ষোভ ঝাড়েন সংশ্লিষ্টদের ওপর। আবার অনেকেই সংশ্লিষ্টদের ভয়ে মুখ খুলতেও সাহস পায়নি। কেউ কেউ ওই নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে কাজে বাধা দিলেও তা শুনেনি ঠিকাদার। এলাকা বাসির দাবি আবারো খুব দ্রুত টেকসই কাজ করা হোক। বর্ষা আসার আগেই সংস্কার চান তারা, না হলে আবারও ভুগতে হবে ওই এলাকার মানুষদের।
স্থানীয় গ্রাম প্রধান আব্দুল কুদ্দুস সহ একাধিক ব্যক্তি বলেন, আমরা নিম্নমানের কাজ দেখে ঠিকাদার ও উপজেলা প্রকৌশলীকে বহুবার বলেছি তারা কোন কর্ণপাত করেনি। তারা তাদের মত কাজ করেছে। এমনকি বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানিয়েছি তিনি বলেছেন যেভাবে কাজের সিডিউল আছে সেভাবেই তারা কাজ করবে। এমনটাই বলছিলেন স্থানীয়রা।
এবিষয়ে ঠিকাদার নতুন এর ম্যানেজার হোসেন আলী তিনি বলেন, এসব বিষয়ে আমার জানা নেই। অন্যদিকে ওই কাজ করা ঠিকাদার নতুন এর সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আপনাদের সাথে পরে কথা বলব। বলে ফোন কেটে দেয়।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে পুঠিয়া উপজেলা প্রকৌশলী পারভেজ নেওয়াজ খান তিনি বলেন, কোথায় কাজ খারাপ হয়েছে আপনারা আমার সাথে যাবেন? যদিও শেষ পর্যন্ত সাংবাদিকদের নিয়ে যাননি তিনি। এছাড়াও ওই কাজের বিষয়ে কোনো তথ্য দিতে পারেনি। ফাইল অফিসের নেই বলে, আগামীকাল আসতে বলেন সাংবাদিকদের।


আরো খবর