• ঢাকা, বাংলাদেশ রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:১৭ অপরাহ্ন

বন্দিরা মুক্তি না পাওয়া পর্যন্ত গাজায় পানি-বিদ্যুৎ-জ্বালানি বন্ধ: ইসরায়েল

রিপোর্টার নাম:
আপডেট বৃহস্পতিবার, ১২ অক্টোবর, ২০২৩

রাজশাহী সংবাদ ডেস্ক

ফিলিস্তিনের গাজায় ইসরায়েলসহ যেসব বিদেশি নাগরিককে বন্দি করা হয়েছে তাদের মুক্তি দিতে হুমকি দিয়েছে ইসরায়েল। দেশটি বলছে, ওই ব্যক্তিদের মুক্তি না দেয়া পর্যন্ত পানি, খাবার,বিদ্যুৎসহ সবকিছু বন্ধ থাকবে।

ইসরায়েলের জ্বালানিমন্ত্রী ইসরাইল কাটজ গাজায় মানবিক সহায়তা পাঠানো প্রসঙ্গে এক বিবৃতিতে এ কথা বলেছেন বলে বার্তা সংস্থা এএফপির বৃহস্পতিবারের এক প্রতিবেদেনে বলা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘গাজায় মানবিক সহায়তা? কোনো বৈদ্যুতিক সুইচ চালু হবে না, পানির ট্যাপ খুলবে না এবং কোনো জ্বালানিবাহী ট্রাকও প্রবেশ করবে না; যতক্ষণ না ইসরায়েলেরর বন্দিরা মুক্তি পাচ্ছেন।’

দীর্ঘদিনের শত্রু ইসরায়েলের সঙ্গে এবারের সংঘর্ষে ফিলিস্তিনের উপত্যকা গাজার শাসক দল হামাস দেড় শতাধিক মানুষকে বন্দি করেছে, এদের মধ্যে ইসরায়েলের বাসিন্দাই বেশি।

ভূমধ্যসাগরের তীরবর্তী গাজার সীমান্তের বড় অংশই ইসরায়েলের সঙ্গে, বাকিটা মিশরের সঙ্গে। এর দৈর্ঘ্য ৪১ কিলোমিটার এবং প্রশস্ত ১০ কিলোমিটার। প্রায় ২৩ লাখ মানুষ বসবাস করছে গাজায়।

গত ৭ অক্টোবর সকালে হামাস ইসরায়েলে অতর্কিত হামলা চালালে প্রাথমিক পর্যায়ে ৪০ জনের মৃত্যুর তথ্য পাওয়া যায়। এরপর নিহতের সংখ্যা বাড়তে থাকে। পরে পাল্টা বিমান হামলা শুরু করে ইসরায়েলও। দুই পক্ষই ব্যাপক সংঘর্ষে জড়ায়।

এরই মধ্যে ইসরায়েল হামাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে। তারা ব্যাপক বিমান হামলা চালাচ্ছে। গাজায় পানি, খাবার, জ্বালানি, ওষুধ ও বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করে দিয়েছে ইসরায়েল। সর্বাত্মক যুদ্ধের ঘোষণা দিয়েছে দেশটি।

হামাসের হামলায় নিহত ইসরায়েলির সংখ্যা এক হাজার ৩০০ ছাড়িয়য়েছে। আর গাজায় ইসরায়েলের অব্যাহত বিমান হামলায় নিহতের সংখ্যা এখন এক হাজার ২০০-এর বেশি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

এই ক্যাটাগরিতে আরো নিউজ
%d