• ঢাকা, বাংলাদেশ বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ১১:০২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
নোটিশ
রাজশাহীতে আমরাই প্রথম পূর্ণঙ্গ ই-পেপারে। ভিজিট করুন epaper.rajshahisangbad.com

বাঘায় ফসলী জমিতে পুকুর খননের দায়ে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

বাঘা প্রতিনিধি
সর্বশেষ: মঙ্গলবার, ২ এপ্রিল, ২০২৪

রাজশাহীর বাঘায় অবৈধভাবে ফসলি জমিতে পুকুর খননের অপরাধে ভ্রাম্যমাণ আদালতে নাজিম উদ্দিন নামের এক ব্যক্তির ৫০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। সোমবার (১ এপ্রিল) দুপুর ২ টার দিকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তরিকুল ইসলাম বিশেষ অভিযান চালিয়ে এ জরিমানা আদায় করেন।

জানা গেছে, বাঘা পৌরসভার নারায়াণপুর গ্রামের লায়েব উদ্দিনের ছেলে নাজিম উদ্দিন পাকুড়িয়া ইউনিয়নের বলরামপুর গ্রামে হাবিবর রহমানের আম বাগান কেটে পুকুর খনন করছিলেন। পুকুর কাটা মাটি ট্রাক্টরের মাধ্যমে বিভিন্ন জায়গায় বহন করছিলেন। এমন অভিযোগে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার তরিকুল ইসলাম অভিযান চালিয়ে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন। এ সময় খননযন্ত্র (ভেকুর) দুইটি ব্যাটারি জব্দ করা হয়।

এ দিকে উপজেলার আড়পাড়া, আমোদপুর, বলিহার, বারখাদিয়া, মনিগ্রাম, তুলশিপুর, ছাতারী, বাউসা, দিঘা, তেথুলিয়া, আড়ানীর বিলে পুকুর খননের হিড়িক পড়েছে। প্রতিদিন সন্ধ্যার পর থেকে পরদিন সকাল ৮টা পর্যন্ত চলছে একটানা পুকুর খনন। সরকারিভাবে পুকুর খননে বাধা-নিষেধ থাকলেও এ আইন মানছে না প্রভাবশালীরা। তারা প্রভাব খাটিয়ে প্রশাসনকে ম্যানেজ করে একের-পর এক পুকুর খনন করছেন। স্থানীয়দের অভিযোগ যা দেখেও দেখছে না স্থানীয় প্রশাসন।

উপজেলার বলিহার গ্রামের মাইক্রো চালক অমৃত কুমার বলেন, উপজেলার বিভিন্ন স্থানে পুকুর খননের মাটি রাস্তায় উপর পড়ে রয়েছে। এতে একটু বৃষ্টিতে রাস্তা পিচ্ছিল হয়ে যাচ্ছে। এতে গাড়ি চালাতে গিয়ে অনেকেই দুর্ঘটনার শিকার হতে হচ্ছে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তরিকুল ইসলাম বলেন, অভিযান শুরু করেছি। ইতিমধ্যেই এক ব্যক্তির জরিমানা ও খননযন্ত্র (ভেকুর) ব্যাটারি জব্দ করা হয়েছে। জনদুর্ভোগ লাঘবে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরো খবর