• ঢাকা, বাংলাদেশ বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১১:১৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম
মোহনপুরে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে সেই হাবিবার বাজিমাত রাজশাহীতে অটোরিকশাকে ট্রেনের ধাক্কা, নিহত ২ নগরীতে দুই অপহরণকারী গ্রেপ্তার, অপহৃত উদ্ধার রাসিক ইমপ্লয়মেন্ট স্কিল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউটে প্রশিক্ষণ নিয়ে পেইড ইন্টার্নশিপের সুযোগ পেলেন ৯০ জন নিয়ামতপুরে দুর্নীতিবিরোধী বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত গোমস্তাপুরে জাতীয় শিক্ষা  সপ্তাহের পুরস্কার বিতরণী রহনপুরে  কৃতি শিক্ষার্থী  সম্বর্ধনা  বাঘায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সংঘাত ও সহিংসতা পরিহারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন উপজেলা নির্বাচন: পবা ও মোহনপুরে হামলা-সংঘর্ষ রাজশাহীতে চেয়ারম্যান প্রার্থীর ছেলের উপর হামলা
নোটিশ
রাজশাহীতে আমরাই প্রথম পূর্ণঙ্গ ই-পেপারে। ভিজিট করুন epaper.rajshahisangbad.com

রাব্বানীকে সমর্থন দিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আখতার

রিপোর্টার নাম:
সর্বশেষ: শনিবার, ৩০ ডিসেম্বর, ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক

জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাজশাহী-১ (তানোর-গোদাগাড়ী) আসনের ঈগল প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী আখতারুজ্জামান আখতার নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন। শনিবার দুপুর ২টার দিকে রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত হয়ে তিনি এ ঘোষণা দেন। একইসঙ্গে তিনি আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী গোলাম রব্বানীকে (কাঁচি প্রতীক) সমর্থন দিয়ে তার পক্ষে কাজ করার ঘোষণা দিয়েছেন ।

সংবাদ সম্মেলনে আখতার বলেন, আমার ও রাব্বানী ভাইয়ের আদর্শ ও উদ্দেশ্য এক হবার জন্য আমি নির্বাচন থেকে সরে যেয়ে তার সাথে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি । আমরা অবশ্যই ৭ তারিখে ভোট দিয়ে গোলাম রাব্বানীকে জয়যুক্ত করবো।

আখতারুজ্জামান তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, আমার নির্বাচনী প্রতীক ঈগল। নির্বাচনী কার্যকলাপে গিয়ে আমার উপলব্ধি হয়েছে যে, আমার উদ্দেশ্য এবং গোলাম রাব্বানী (যিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন, যার মার্কা কাঁচি) আমাদের একটিই উদ্দেশ্য। আর সেটি হলো-গোদাগাড়ী-তানোরকে রাহুমুক্ত করতে হবে। সেই জায়গায় আমার উপলব্ধি হয়েছে, আমরা দুইজন যদি প্রতিযোগিতা করতে যাই তাহলে রাহুমুক্ত হওয়া সম্ভব নয়। সেই জায়গায় গোলাম রাব্বানীর সাথে দীর্ঘদিনের একসাথে পথ চলা। তিনি আমার বয়সে বড় এবং গত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও তিনি মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন। সেক্ষেত্রে আমার মনে হয়েছে, আমাকে উনি ছাড় দিলে আমি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হতাম। যেহেতু উনি আমার বড় ভাই, দীর্ঘদিন ধরে তিনি এটা প্রত্যাশা করে আছেন। তাই আমার উপলব্ধি হয়েছে তাকে সম্মান জানিয়ে আমার এই জায়গা থেকে সরে আসা দরকার। সেই প্রেক্ষিতে প্রাণপ্রিয় গোদাগাড়ী-তানোরবাসীর চাহিদা মোতাবেক আমি আজকে নির্বাচন থেকে সরে আসলাম। আমি আমার সর্বোচ্চ, মেধা, শ্রম ও আমার নেতাকর্মীসহ গোলাম রাব্বানীর পক্ষে অবস্থান নিয়ে তাকে জয়যুক্ত করার জন্য চেষ্টা করবো। আমি বিশ্বাস করি, গোদাগাড়ী-তানোরবাসী আমাদের আহ্বানে সাড়া দিয়ে আগামী ৭ জানুয়ারি গোলাম রাব্বানীর মার্কা কাঁচি মার্কায় ভোট দিয়ে তাকে জয়যুক্ত করবে।

তিনি আরো বলেন, নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ওমর ফারুক চৌধুরীমুক্ত গোদাগাড়ী-তানোর চাইলে সকল স্বতন্ত্র প্রার্থীর একসাথে গোলাম রাব্বানী ভাইকে সমর্থন দিয়ে কাজ করা উচিত। এসময় উপস্থিত থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী গোলাম রাব্বানী সাংবাদিকদের বলেন, আমি আখতার ভাইয়ের থেকে সুযোগ চেয়েছি, তিনি আমাকে সমর্থন ও সম্মান দিয়েছেন। আমরা ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করবো ৭ তারিখে আমাদের জয় হবে ইনশাআল্লাহ।

উল্লেখ্য, তানোর গোদাগাড়ী আসনের সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী আখতারুজ্জামানসহ মোট প্রার্থী সংখ্যা ১১জন।


আরো খবর