• ঢাকা, বাংলাদেশ বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১১:৫৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম
পবায় ডাবলু ও মোহনপুরে বকুল বিজয়ী, দুই উপজেলায় ভাইস চেয়ারম্যান হলেন যারা মোহনপুরে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে সেই হাবিবার বাজিমাত রাজশাহীতে অটোরিকশাকে ট্রেনের ধাক্কা, নিহত ২ নগরীতে দুই অপহরণকারী গ্রেপ্তার, অপহৃত উদ্ধার রাসিক ইমপ্লয়মেন্ট স্কিল ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউটে প্রশিক্ষণ নিয়ে পেইড ইন্টার্নশিপের সুযোগ পেলেন ৯০ জন নিয়ামতপুরে দুর্নীতিবিরোধী বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত গোমস্তাপুরে জাতীয় শিক্ষা  সপ্তাহের পুরস্কার বিতরণী রহনপুরে  কৃতি শিক্ষার্থী  সম্বর্ধনা  বাঘায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সংঘাত ও সহিংসতা পরিহারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন উপজেলা নির্বাচন: পবা ও মোহনপুরে হামলা-সংঘর্ষ
নোটিশ
রাজশাহীতে আমরাই প্রথম পূর্ণঙ্গ ই-পেপারে। ভিজিট করুন epaper.rajshahisangbad.com

সব ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে বাংলাদেশ উন্নত হবে: চিফ হুইপ

রাজশাহী সংবাদ ডেস্ক
সর্বশেষ: শনিবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২৪

শনিবার (১৩ এপ্রিল) বিকেলে মাদারীপুর জেলার শিবচরের সূর্যনগরে বীর মুক্তিযোদ্ধা ইলিয়াস আহমেদ চৌধুরী তোরণ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এ মন্তব্য করেন।

নূর-ই-আলম চৌধুরী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাড়া বাংলাদেশে কোনো বিকল্প নেই। সব ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে বাংলাদেশ উন্নত দেশে পরিণত হবে এবং শিবচরের মাটিকে আমরা সোনার মাটিতে রূপান্তর করবো। দেশের মধ্যে সর্বপ্রথম যে থানাগুলো উন্নত হবে, তার মধ্যে শিবচর থাকবে!

তিনি আরও বলেন, আজ থেকে ৫০ বছর আগে এই এলাকা এরকম ছিল না। এখান থেকে যে একটা বিশ্বরোড যাবে, এত সুন্দর একটা রাস্তা যাবে, এটা আমরা ভাবতে পারিনি। আমাদের পিতা মরহুম ইলিয়াস আহমেদ চৌধুরী ১৯৭৪ সালেই ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের প্রস্তাব বঙ্গবন্ধুর কাছে দিয়েছিলেন। বঙ্গবন্ধু ১৯৭৪ সালের বাজেটেই এই রাস্তার জন্য বরাদ্দ দিয়েছিলেন। জাতির পিতা যদি বেঁচে থাকতেন, তবে অনেক আগেই আমাদের স্বপ্নের রাস্তা বাস্তবায়ন হতো।

‘বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার কারণে, আপনারা তাকে বারবার ক্ষমতায় বসানোর কারণে আমরা শুধু রাস্তাই নয়, পদ্মাসেতু পেয়েছি। রেল সড়ক পেয়েছি, রেল স্টেশন পেয়েছি। আজ শিবচরের মানুষ সড়কপথে এবং রেলপথে আসা-যাওয়া করতে পারছে’, যোগ করেন তিনি।

চিফ হুইপ আরও বলেন, শিবচরকে আমরা আরও উন্নত করবো। শিবচরের ছেলেমেয়েদের যেন বিদেশে গিয়ে লেখাপড়া করতে না হয়, বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা করতে না হয়। বিভিন্ন এলাকার মানুষ যেন শিবচরে আসে।

এসময় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুনির চৌধুরী, শিবচর উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ মোল্লা, পৌর মেয়র আওলাদ হোসেন খান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যার আতাউর রহমান আতাহার বেপারী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. সেলিম, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মো. ইলিয়াস পাশাসহ স্থানীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

সূর্যনগর-উৎরাইল আঞ্চলিক সড়কের প্রবেশপথে মাদারীপুর জেলা পরিষদের অর্থায়নে এক কোটি পাঁচ লাখ টাকা ব্যয়ে একটি তোরণ নির্মাণ করা হয়। ৭৬ ফিট লম্বা, ৩৫ ফিট উঁচু এবং ৯ ফিট প্রস্থের এই তোরণটির নামকরণ করা হয় মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, স্বাধীনতা পুরস্কার প্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা ইলিয়াস আহমেদ চৌধুরীর (দাদা ভাই) নামে।


আরো খবর